দেশে ফেসবুকেই ব্যবসা হয় ৩১২ কোটি টাকার

কারোনা কালীন সময়ে দেশে ই কমার্স ব্যবসা জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে । বর্তমানে দেশে শুধু ফেসবুকের মাধ্যমেই ব্যবসা হয়েছে প্রায় ৩১২ কোটি টাকা । আগামী তিন বছরের মধ্যে ফেসবুক সহ ই-কমার্সের বাজার গিয়ে দাঁড়াবে প্রায় ২৬ হাজার কোটির টাকায় ।

‘কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে ই-কমার্স ও ভোক্তা অধিকার: প্রতিবন্ধকতা ও সুপারিশ’ শীর্ষক একটি ভার্চ্যুয়াল আলোচনায় বক্তারা এসব কথা বলেন। ঢাকা চেম্বারের আয়োজনে মঙ্গলবার এ আলোচনার আয়োজন করা হয় ।  আলোচনায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাণিজ্যসচিব মো. জাফর উদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) এর সভাপতি গোলাম রহমান।

দেশে ফেসবুকেই ব্যবসা হয় ৩১২ কোটি টাকার

 মূল প্রবন্ধ টি উপস্থাপন করেন , বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এর  সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির ।

 আলোচনায় বলা হয় , দেশে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীর সংখ্য বর্তমানে প্রায় ৩ কোটি ৬০ লাখ । আর এর মধ্যে ফেসবুক ব্যবহারকারী আছেন ৮৯ দশমিক ৬২ শতাংশ ।ফেসবুক ঘিরে যে সকল ব্যবসা গড়ে ওঠেছে তার সংখ্য প্রায় ৩ লাখ এবং এর অর্ধেকই হলেন নারী উদ্যোক্তা । ফেসবুক থেকে উদ্যোক্তারা মাসে গড়ে প্রায় ১০ হাজার থেকে এক লাখ টাকা আয় করে থাকেন । তাদের সম্মিল্লিত  লেনদেনের পরিমাণ প্রায় ৩১২ কোটি টাকা । 

যদিও ফেসবুকে যারা ব্যবসা করেন তার মধ্যে ৭-৮ শতাংশ উদ্যোক্তা সফল হয়েছেন । তবে আগামী তিন বছরে েই- কমার্স এর বাজার বৃদ্ধি পেয়ে ২৬ হাজার ৩২৪ কোটি টাকায় পৌঁছাবে । 

ফেসবুক ছাড়াও দেশে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আছে ২ হাজার ৫০০ টি । তাদের পণ্য শহরকেন্দ্রিক লোক জনই মূলত কিনে থাকেন । দৈনিক ৩০ হাজার অর্ডার ভোক্তার নিকট পৌছে থাকে এ প্রতিষ্ঠানগুলো । চলতি বছর এ বাজার বেড়ে দাঁড়াবে ২০৭ কোটি ডলারে যা গতবছর ১৬৪ কোটি ডলার ছিল । এ হিসেবে এ বছর ই-কমার্সের বাজার বৃদ্ধি পাবে ২৬ শতাংশ । 

ই কমার্স সাইটগুলো থেকে বেশির ভাগ পণ্য কিনেন ২৫ – ৩৪ বছর বয়সী মানুষ । এরপর ১৬ শতাংশ কেনেন ৩৫ – ৪৪ বছর বয়সিী লোক। ১৮ – ২৪ বছর বয়সী মানুষ কেনেন ১৪ শতাংশ পণ্য । ২৫ -৩৪ বয়সী মানূষই সবচেয়ে বেশি প্রায় ৬১ শতাংশ পণ্য কিনে থাকেন ।

বেসিস এর সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির বলেন, ফেসবুক কেন্দ্রিক উদ্যোক্তাদের অধিকাংশেরই ট্রেড লাইসেন্স নেই। উদ্যোক্তাদের একটি নিবন্ধন কার্যক্রমের আওতায় আনা সম্ভব হলে, তাদের আর্থিক ঋণসুবিধা পাওয়া সহজ হবে। তাতে উদ্যোক্তাদের কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করাও সম্ভব হবে। তিনি বলেন, তৃণমূল পর্যায়ের মানুষদের ই-কমার্সের আওতায় নিয়ে আসতে সুলভ মূল্যে ইন্টারনেট সুবিধা নিশ্চিতকরণের পাশাপাশি সাইবার নিরাপত্তা জোরদার করতে হবে।

দেশে ফেসবুকেই ব্যবসা হয় ৩১২ কোটি টাকার

50% LikesVS
50% Dislikes

Leave a Reply

Share