সেপ্টেম্বরেই মোবাইল ব্যাংকিংয়ে গ্রাহক বাড়ল ১৮ লাখ

দ্রুতগতিতে বেড়ে চলেছে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের গ্রাহক সংখ্যা । মোবাইল ব্যাংকিং এ ১৮ লাখ গ্রাহক বেড়েছে শুধুমাত্র গত সেপ্টেম্বরে । একি সাথে লেনদেনের পরিমাণও উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে । সেপ্টেম্বরে লেনদেন বৃদ্ধির হার ছিল প্রায় ১৮ শতাংশ । বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে উঠে এসেছে এমন তথ্য ।

মুহূর্তের মধ্যে একস্থান থেকে অন্য স্থানে টাকা পাঠানোর সুবিধা থাকায় দেশে মোবাইল ব্যাংকিং দ্রুত জনপ্রিয়তা লাভ করে । মোবাইল ব্যাংকিং এ টাকা পাঠানো ছাড়াও বিদ্যুৎ বিল , গ্যাস বিল ও পানির বিল পরিশোধের মতো সুবিধা পাওয়া যায় । এছাড়া কোনাকাটার বিল পরিশোধ , বেতন-মজুরি প্রদান এবং বিদেশ থেকে টাকা পাঠানোসহ অনেক নতুন নতুন সেবা মিলছে এ মোবাইল ব্যাংকিং এ । মোবাইল ব্যাংকিং এ এরূপ সুবিধা প্রদানের মাধ্যমে দেশে মোবাইল ব্যাংকিং বিশাল পরিবর্তন সাধন করেছে ।

সেপ্টেম্বরেই মোবাইল ব্যাংকিংয়ে গ্রাহক বাড়ল  ১৮ লাখ
সেপ্টেম্বরেই মোবাইল ব্যাংকিংয়ে গ্রাহক বাড়ল ১৮ লাখ

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদন অনুযায়ী , দেশে এখন ১৫ টি ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সাথে জড়িত আছে । চলতি বছরের সেপ্টেম্বর শেষে দেশে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের গ্রাহক সংখ্যা নয় কোটি ৪৭ লাখ ৮৭ হাজারে পৌঁছেছে । এটি এর আগের মাস অর্থ্যাৎ আগস্ট মাসের চেয়ে ২ শতাংশ বেশি ।

মোট গ্রাহকের পাশাপাশি সক্রিয় গ্রাহক সংখ্যাও বেড়ে গেছে । সেপ্টেম্বর শেষে এমএফএস সক্রিয় গ্রাহক ১.১ শতাংশ বেড়ে চার কোটি ১০ লাখ ৩৫ হাজারে পৌঁছেছে । টানা তিন মাস কোন লেনদেন না করলে তাকে নিষ্কিয় গ্রাহক বলে বিবেচনা বরা হয়েছে । সেপ্টেম্বরে মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্ট সংখ্যা ১০ লাখ ১৭ হাজার এ দাঁড়িয়েছে ।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে মোট ১৫টি ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সঙ্গে জড়িত আছে। ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর শেষে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে নিবন্ধিত গ্রাহকসংখ্যা দাঁড়ায় ৯ কোটি ৪৭ লাখ ৮৭ হাজারে, যা এর আগের মাস আগস্টের চেয়ে ২ শতাংশ বেশি।

মোট গ্রহকসংখ্যার সঙ্গে সক্রিয় গ্রাহকসংখ্যাও বেড়েছে। সেপ্টেম্বর শেষে এমএফএস সক্রিয় গ্রাহক এক মাসের ব্যবধানে ১.১ শতাংশ বেড়ে চার কোটি ১০ লাখ ৩৫ হাজারে দাঁড়িয়েছে। নিয়মানুযায়ী, টানা তিন মাস একবারও লেনদেন করেনি, এমন হিসাবকে নিষ্কিয় হিসাব বলে গণ্য করা হয়। এই সময়ে মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্টের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০ লাখ ১৭ হাজার ৫৫ জনে।

50% LikesVS
50% Dislikes

Leave a Reply

Share